in

‘নাগরিক তথ্য সংগ্রহ পক্ষ- ২০২১’ উপলক্ষে উত্তরা বিভাগে বর্ণাঢ্য শ

“নাগরিক তথ্য সংগ্রহ পক্ষ-২০২১” সফল করার লক্ষ্যে বিশেষ শোভাযাত্রা ও বিট পুলিশিং সমাবেশ আয়োজন করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উত্তরা বিভাগের উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ। 

বর্ণাঢ্য এই শোভাযাত্রাটি উত্তরা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শহিদুল্লাহ, বিপিএম, পিপিএম এবং ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাবিব হাসান বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধন করেন।

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১  বুধবার সকাল ১০.০০ টায় বর্ণাঢ্য এ শোভাযাত্রাটি উত্তরা পশ্চিম থানাধীন ০৩ নং সেক্টরস্থ রাজলক্ষী থেকে শুরু হয়ে ০৩ নং সেক্টরস্থ হোয়াইট হলে শেষ হয়ে সেখানে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। 

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাবিব হাসান, এমপি ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উত্তরা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার  মোঃ শহিদুল্লাহ, বিপিএম, পিপিএম উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও উক্ত সমাবেশে উত্তরা জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ কামরুজ্জামান সরদার, এয়ারপোর্ট জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার তাপস কুমার দাস, দক্ষিনখান জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ হাফিজুর রহমান, কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি জনাব মামুন সরকার, বিশিষ্ট চলচ্চিত্র অভিনেতা মোঃ আমিন খান, ০১ নং ওর্য়াড কাউন্সিলর মোঃ আফসার খান, ৫২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শরীফুর রহমান সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ছাত্র-ছাত্রী, সেক্টর কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

সমাবেশে উত্তরা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ শহিদুল্লাহ, বিপিএম, পিপিএম বলেন, সর্বস্তরের মানুষের সার্বিক সহযোগিতায় সব ধরনের অপরাধ প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বিট পুলিশিং কার্যক্রম। পুলিশি সেবা আরও গতিশীল ও কার্যকরের লক্ষ্যে জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কার্যক্রমসহ বিট পুলিশিংয়ের ফলে এলাকার অপরাধী এবং অপরাধের প্রকৃতি সম্পর্কে দ্রুত বিস্তারিত জানা যাবে। পাশাপাশি স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে পুলিশের কার্যকরী যোগাযোগ এবং  বন্ধুত্বপূর্ণ মনোভাব সৃষ্টি হবে। পুলিশের জন্য এলাকার বিভিন্ন বিষয়ে তথ্য জানাসহ অপরাধ দমন ও সহজে রহস্য উৎঘাটন করা যাবে। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্ব মোঃ হাবিব হাসান এমপি বলেন, উত্তরা বিভাগের বিট কর্মকর্তাদের-কে সহযোগিতা করার জন্য তিনি সেক্টর কল্যান সমিতি এবং বাড়িওয়ালাদের কে আহবান জানান। 

উত্তরা জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ কামরুজ্জামান সরদার বলেন, গত বছর উত্তরা বিভাগ সর্বোচ্চ সংখ্যক নাগরিক তথ্য ফরম সংগ্রহ এবং ডেটাবেজে এন্ট্রি দিয়েছিল। তিনি আরো বলেন বাড়িওয়ালাদেরকে আরো সচেতন হতে হবে, ভাড়াটিয়াদের সম্পর্কে জানতে হবে এবং নাগরিক তথ্য ফরমের এক কপি বিট কর্মকর্তার কাছে জমা দিয়ে এক কপি নিজে সংরক্ষণ করে রাখতে হবে।

This post was created with our nice and easy submission form. Create your post!

What do you think?

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

রাস্তার মাজখানে গারীর চাকা পালটাবেন না

পঞ্চম দিনে টিকা নিলেন ২ লাখের বেশি মানুষ