আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ ও গভীরতম রেল সুড়ঙ্গটি । প্রায় দুই দশক ধরে সুইজারল্যান্ডের 'গোটহার্ড' নামক এই সুড়ঙ্গটির নির্মাণ কাজ চলছিল।

৫৭ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেল সুড়ঙ্গটিতে জোড়া রেল লাইন রয়েছে। সুইস আল্পস পর্বতের নিচ দিয়ে তৈরি এই সুড়ঙ্গের মাধ্যমে উত্তর ও দক্ষিণ ইউরোপের মধ্যে দ্রুত গতির রেল যোগাযোগ স্থাপিত হবে। সুইস কর্তৃপক্ষ আশা করছে এই রেল সুড়ঙ্গটি ইউরোপের পণ্য পরিবহন ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন আনবে  ।সুইস প্রেসিডেন্ট জোহান স্নাইডার-আমান  রেল সুড়ঙ্গটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উত্তর দিকের প্রবেশমুখে বলেন, “সুইজারল্যান্ডেরজন্য এটা একটি বিশাল পদক্ষেপ। সেই সঙ্গে এটি আমাদের প্রতিবেশী ও ইউরোপের বাকি দেশগুলোর জন্যও সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ।”এ সময় সুড়ঙ্গের অন্য প্রান্তে ছিলেন দেশটির কেন্দ্রীয় পরিবহন মন্ত্রী ডরিস লিউথার্ড।পাশাপাশি দুই রেল লাইনে বিপরীত দিক থেকে দু'টি ট্রেন কয়েকশ’ অতিথি যাত্রী নিয়ে যাত্রা করার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবেরেল সুড়ঙ্গটি উদ্বোধন করা হয়।১২০০ কোটি মার্কিন ডলারেরও বেশি খরচ হয়েছে এই রেল সুড়ঙ্গটি তৈরি করতে । এমনকি সুড়ঙ্গটি তৈরি করা নিয়ে ১৯৯২ সালে সুইজারল্যান্ডেগণভোটও অনুষ্ঠিত হয়েছিল।ডিসেম্বরে সুড়ঙ্গটি সম্পূর্ণরূপে ব্যবহার উপযোগী হবে বলে জানানো হয়েছে।সুইজারল্যান্ডেরজুরিখ থেকে ইতালির মিলানে ভ্রমণকারীদের প্রায় আড়াই ঘণ্টা সময় বেঁচে যাবে আর এর মাধ্যমে ।সুড়ঙ্গটি পার হতে ১৭ মিনিটের মত সময় লাগবে এবং প্রতিদিন প্রায় ২৬০টি পণ্যবাহী ট্রেন ও ৬৫টি যাত্রীবাহী ট্রেন  সুড়ঙ্গ পথে চলবে বলে জানা গেছে।

 

YOUR REACTION?

Facebook Conversations



Disqus Conversations