আজ প্রয়াত লেখক হুমায়ূন আহমেদর ৭০তম তম জন্মদিন
বাংলাদেশের উপন্যাস, গল্প, নাটক তৈরি তে অন্যবদ্ধ এক নক্ষত্রের নাম হুমায়ুন আহমেদ, বাংলাদেশ এর মানুষ আগ্রহ নিয়ে উপন্যাস পড়া তিনি ই শিখিয়েছেন ।

কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৭০তম জন্মদিন আজ। নন্দিত এই লেখকের জন্মদিনে সাহিত্যানুরাগী, শুভাকাঙ্ক্ষীরা শুভেচ্ছা জানিয়ে তাঁকে স্মরণ করছেন। তাঁদের সঙ্গে শামিল হয়েছে সার্চ ইঞ্জিন গুগলও। জনপ্রিয় এই লেখকের জন্মদিনে বিশেষ ডুডল প্রদর্শন করছে গুগল।

গুগলে ঢুকলেই লেখক হুমায়ূন আহমেদকে নিয়ে করা বিশেষ ডুডলটি চোখে পড়ছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, সবুজের ঘেরা প্রকৃতির মাঝে টেবিলে বসে বই পড়ছেন হুমায়ূন আহমেদ। টেবিলে চায়ের কাপ ও কেটলিও রয়েছে। আর তারই পাশ দিয়ে হলুদ রঙের পাঞ্জাবি পরে হেঁটে যাচ্ছে তাঁরই সৃষ্টি জনপ্রিয় চরিত্র হিমু। একই সঙ্গে সেখানে শোভা পাচ্ছে প্রকৃতির পরশে আঁকা গুগল লেখাটি।

জনপ্রিয় এই লেখক, নাট্যকার, চলচ্চিত্রকার ১৯৪৮ সালের এই দিনে নেত্রকোনা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন।

হুমায়ূন আহমেদের প্রকাশিত গ্রন্থসংখ্যা তিন শতাধিক। তাঁর লেখা অন্যতম উপন্যাসগুলো হলো ‘নন্দিত নরকে’, ‘মধ্যাহ্ন’, ‘জোছনা ও জননীর গল্প’, ‘মাতাল হাওয়া’ ইত্যাদি। তাঁর লেখা উপন্যাসের জনপ্রিয় চারটি চরিত্র হলো হিমু, রুপা, মিসির আলী ও শুভ্র।

ঔপন্যাসিক, ছোটগল্পকার ও গীতিকার হিসেবে হুমায়ূন আহমেদ যেমন জনপ্রিয়তা পেয়েছেন, তেমনি নাটক ও চলচ্চিত্র নির্মাণ করেও লাখো মানুষের হৃদয় জয় করে নিয়েছেন তিনি।

হুমায়ূন আহমেদ নির্মিত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হচ্ছে ‘আগুনের পরশমণি’, ‘দুই দুয়ারী’, ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’,‌ ‘শ্যামল ছায়া’, ‘চন্দ্রকথা’ ও ‘ঘেটুপুত্র কমলা’ ইত্যাদি।

তাঁর লেখা উল্লেখযোগ্য নাটকগুলো হলো ‘এইসব দিনরাত্রি’, ‘অয়োময়’, ‘কোথাও কেউ নেই’, ‘নক্ষত্রের রাত’, ‘আজ রবিবার’ ইত্যাদি।

পেশাজীবনে হুমায়ূন আহমেদ ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক। পরে অধ্যাপনা ছেড়ে দিয়ে লেখালেখিতে নিয়মিত হোন তিনি। বাংলা সাহিত্যের কিংবদন্তি এই লেখক ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০১২ সালের ১৯ জুলাই ইন্তেকাল করেন।

YOUR REACTION?

Facebook Conversations



Disqus Conversations