ভ্রমণ।
ভ্রমণকে আরও বেশি আনন্দময় করার জন্য কিছু সহজ কিছু উপায়।

1.

ভ্রমণ পরিকল্পনার শুরুতেই একটি প্যাকিং লিস্ট প্যাড নিয়ে নিন যাতে করে আপনাকে কখনই “কিছু ছেঁড়ে গেলাম কিনা?!” এই সংশয়ে পরতে না হয়। 

2.

যাত্রা পথে বাচ্চাদের কান্নাকাটি বা ভ্রমণসঙ্গীদের খোশ গল্প নিয়ে বেশ চিন্তিত? তাহলে এর উত্তম সমাধান হিসেবে সাথে নিয়ে নিন একটি Noise Cancelling headphone।

3.

যদি হেডফোনটি ব্যবহার করতেই হয় তাহলে অবশ্যই সাথে একটি পাওয়ার ব্যাংক নিতে ভুলবেন না। কারন যাত্রাপথে আপনার মোবাইল ফোনটি সর্বদা সচল থাকাটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ বটে।

4.

বাজারে আজকাল ত্রিমাতৃক ভাজ করার সুবিধা সম্পন্ন বেশ কিছু ডিজাইনের ব্যাগ পাওয়া যায়, যেগুলোতে আপনি আপনার গুরুত্বপূর্ণ সার্বিক কাগজপত্রগুলো বেশ সুন্দরভাবে গুছিয়ে নিতে পারবেন।  

5.

অথবা আপনি চাইলে চামড়ার তৈরি পাসপোর্ট হোল্ডার নিতে পারেন আপনার ভ্রমণ সংক্রান্ত কাগজগুলো রাখার জন্য। এধরণের পাসপোর্ট হোল্ডারগুলো শুধু আপনার উপকারেই আসবেনা বরং আপনার ব্যাক্তিত্বকেও আরও রুচিশীল ওউঁচু করে তুলবে।

6.

৬। যদি আপনি একজন নিয়মিত ভ্রমণকারী হয়ে থাকেন, তাহলে বাসায় একটি ডিজিটাল ওজন মাপার যন্ত্র কিনে রাখতে পারেন। লাগেজ গোছাবার পর তার ওজোনটি মেপে নিন যাতে এয়ারপোর্টে যাবার পর আপনাকে অতিরিক্ত ওজনের কারনে অপ্রত্যাশিতভাবে কোন বারতি খরচ করতে না হয়। 

7.

যাত্রাপথে সবসময়ই চেষ্টা করবেন সাথে একটি পানির বোতল রাখতে।

8.

৯। ভ্রমণকালে কিছু গুরুত্বপূর্ণ জিনিস যেগুলো আপনার প্রায়শই লাগতে পারে সেগুলো একটি আলাদা হাত ব্যাগে রাখুন যাতে নিমিষেই তা পেয়ে যান। কেননা আপনার মূল বড় লাগেজ সচরাচর আপনার সাথে থাকবেনা এটাই স্বাভাবিক।

9.

যদি একটু আরামপ্রিয় বা ঘুমপ্রিয় হয়ে থাকেন তাহলে সাথে করে একটি ভ্রমণ বালিশ নিতে পারেন। আজকাল অনলাইনে এবং বিভিন্ন শপিং মলগুলোতেও বেশ পাওয়া যাচ্ছে এই জিনিসটি। 

10.

ভ্রমণকালে অবশ্যই আরামদায়ক পোশাক পরিধান করবেন যাতে করে আপনি অনেকাংশেই আপনার ঘরে থাকার মত অনুভূতি পেতে পারেন।

11.

এছাড়া আর কিছু টিপস,

* সাথে করে কিছু শুকনো খাবার রাখতে পারেন যাত্রাপথে ক্ষুধা নিবারণের জন্য। অনেকসময় এটা যাত্রাপথের সময় পার করার সঙ্গী হিসেবেও কাজ করে।

* যদি আপনার সাথে ছোট বাচ্চা থাকে তাহলে অবশ্যই ডাইপার নিতে ভুলবেন না। যদি ভুলে যান তাহলে এটি আপনার গোটা ভ্রমণকে অতিমাত্রায় তিক্ত করে তুলতে পারে। 

* আপনার মূল্যবান অলংকারগুলোকে নিরাপদ ও সুরক্ষিত অবস্থায় রাখতে সাথে একটি জুয়েলারি বক্স রাখার জুরি নেই। 

*বিমান বা যেই যানবাহনেই যাত্রা করুন না কেন, অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমান সময় হাতে নিয়ে গৃহ ত্যাগ করবেন যাতে আপনার ফ্লাইট বা গাড়ি আপনাকে রেখেই চলে না যায়! 

YOUR REACTION?

Facebook Conversations


Disqus Conversations