চীনের অদ্ভুত মজার কিছু তথ্য।

জানা অজানা।

পৃথিবীর অন্যতম আকর্ষণীয় দেশ হল চীন।জ্ঞান তথ্য প্রযুক্তি তে উন্নত একটি দেশ।কিন্তু এই দেশের অনেক কিছুই আছে যা আমরা জানিনা।

আসুন জেনে নিই চীন সম্পর্কে মজার কিছু তথ্যঃ

দিনে ২১টি সিগারেটঃ  চীনারা প্রতিদিন সবাই ২১ টি করে সিগারেট খায়।একটু আশ্চর্যজনক তাইনা??চীনের রাজধানী বেইজিং এ প্রতিদিন মানুষ প্রায় ২১ টি সিগারেট এর সমান অপদ্রব্য শ্বাসের সাথে গ্রহন করে।সেখান কার প্রায় সবাই ই মাস্ক ব্যবহার করে এরজন্য।বায়ু দূষন এর জন্য এমন টা হয়।চীন পরিবেশ দূষনে বিশ্বে ১৩ তম।

প্রস্রাব দিয়ে ডিম সিদ্ধঃ

  যত অদ্ভুত খাবার আছে তা সব ই যেন চীনা রা খায়।চার পায়া শুধু চেয়ার টেবিল বাদে সবই খায় তারা।বিড়ালের মাংস তাদের অনেক প্রিয়।তারা কুকুর কুমির সাপ,তেলাপোকা সব ই খায়।তাদের মধ্যে আরেক টি অদ্ভুত খাবার হচ্ছে প্রস্রাব দিয়ে ডিম সিদ্ধ।ছোট ছেলেদের প্রস্রাব সংগ্রহ করে তা দিয়ে তারা ডিম সিদ্ধ করে।এতে নাকি শরীর অনেক ভাল থাকে।

আর্মির গলায় পিন লাগানোঃ

বিশ্বের সবচেয়ে বড় আর্মি চীন দের।ইউএস এর পর চীনারাই বেশি খরচ করে তাদের আর্মিদের পিছনে।প্রত্যেক জন আর্মির কলারেই পিন লাগিয়ে দেয়া হয় যাতে ঘাড় ব্যাকা না হয়।মোবাইল 

ব্যবহারকারীর জন্য আলাদা রাস্তাঃ

মোবাইল ব্যবহার কারীরা যাতে রাস্তায় চলাচল করতে যেয়ে দুর্ঘটনার স্বীকার না হয় এর জন্য আলাদা রাস্তা বা ফুটপাত বানানো হয়।

সবচে বড় জ্যামঃ

২০০৮ সালের ১৪ ই আগস্ট চীনে সবচে বড় জ্যাম সংঘটিত হয়।যেটা প্রায় ১০ দিন স্থায়ী হয়।বিশ্বের সবচে জনবহুল দেশ হয়ার কারনে এই অবস্থা হয়েছিল।প্রায় ১০০ কি.মি জুড়ে এই জ্যাম ছিল।

 গুহায় বসবাসঃ

এখনো প্রায় ৪ লাখ মানুষ গুহায় বাস করে।যা অস্ট্রেলিয়ান জনসংখ্যা হতে ও বেশী।ইউরো নদী এবং পাহাড় এর  এই গুহার সৃষ্টি।পরবর্তীতে তারা আরো কৃত্রিম গুহা বানিয়ে নিয়েছে বসবাসের জন্য।