১১০০ মার্কিন ডলারের বিট কয়েন হলো ১৯০০০ মার্কিন ডলার

২০১৭ এপ্রিল মাসে ১ বিট কয়েন=১১৩৭ মার্কিন ডলার দর ছিল এবং ঐ বছরেই মাত্র ৮ মাসের বেবধানে ১বিট কয়েন= ১৯০০০ মার্কিন. . .

গত বছর ২০১৭ এপ্রিল মাসে ১ বিট কয়েন=১১৩৭ মার্কিন ডলার দর ছিল এবং ঐ বছরেই মাত্র ৮ মাসের বেবধানে ১বিট কয়েন= ১৯০০০ মার্কিন ডলার হয়ে যায়। সত্যি অবাক করা বিষয়। ভাবছেন ইশ! যদি কিছু বিট কয়েন কিনে রাখা যেত।

বিট কয়েন আসলে কি?

বিট কয়েন আসলে কি?

এটি এক ধরনের ক্রিপ্টো-কারেন্সি বা ভারচুয়াল মুদ্রা বলা যায়।মুদ্রাটির দাম ওঠা-নামার মধ্যেই রয়েছে। যদিও বাস্তবে এর অস্তিত্ব নেই। ইন্টারনেট সিস্টেমের মাধ্যমে প্রোগ্রামিং করা আছে যেটি চাইলে কেনা যায়।

কিভাবে কেনা-বেচা হয় এই কয়েন ?

কিভাবে কেনা-বেচা হয় এই কয়েন ?

এই ব্যাপারে একজন অর্থনীতিবিদ বলেন, "এটা এমন একটি কয়েন যেটি কোন ওকেন্দ্রীয় ব্যাংক বা কোনও দেশের জারি করা নয়। ইন্টারনেট সিস্টেমকে ব্যবহার করে কিছু ব্যক্তি এই সিস্টেমকে ডেভেলপ করেছে। এটাকে বলা যেতে পারে এক ধরনের শেয়ার মার্কেট এর মতো।যেটার ভিত্তিতে হয়তো আমার টাকা খাটিয়ে লাভজনক কিছু করে ফেলতে পারে। যার জন্য বেশিরভাগ লোক এটার পিছনে এখন ছুটছে"।

কিভাবে করা যায় এই মুদ্রার মনিটরিং ?

কিভাবে করা যায় এই মুদ্রার মনিটরিং ?

এটার এই মুদ্রার মনিটরিং কিভাবে হয়? এই মুদ্রার সবচেয়ে বড় দুর্বলতা হচ্ছে যে এর কোনও কর্তৃপক্ষ নেই, এর সাথে কোনও কেন্দ্রীয় ব্যাংক নেই যাদের কাছে বলা যাবে এটার বিনিময়ে আমি কিছু পেতে পারি। ধরুন আপনার কাছে কাছে যদি পাঁচশো ডলার বিটকয়েন থাকে যা সে পাঁচশো ডলার দিয়ে কিনেছে এবং সেটা যদি সে ১৯ হাজার ডলারে বিক্রি করতে চায় কেবল মাত্র সেই দামেই সেটি কিনতে হবে।

আমাদের অনেকই প্রশ্ন কিভাবে এই মুদ্রাদিয়ে পণ্য বা সেবা কেনা যায়? বা বিটকয়েন দিয়ে কি সেসব কেনা যায়?

কোনও ব্যক্তির কাছে এ ধরনের পণ্যবা সেবা প্রদানের ব্যবস্থা থাকলে সে চাইলে বিটকয়েনর বিনিময়ে সেটি বিক্রি করতে পারবে। অনলাইনে যেভাবে আমরা ই-পেমেন্ট সিস্টেমে কেনাকাটা করছি সেভাবে বিটকয়েনের মাধ্যমে অনলাইনে কেনা-কাট করা সম্ভব"।

বাংলাদেশের একজন অর্থনীতিবিদ এবং একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইন্সটিটিউটের একজন নির্বাহী পরিচালক বলেন, "এটি ইন্টারনেট সিস্টেমে একটা নির্দিষ্ট অংকে প্রোগামিং করা আছে যা চাইলে আপনি কিনতে পারেন । প্রতিবছর এটি অল্প অল্প করে বাড়ানো হয়ে থাকে। ১০/১৫ বছর পর্যন্ত হয়তো বাড়বে তারপর আর এটার বাড়ার সম্ভবনা নেই।

বিট কয়েনে লেনদেন কতটা নিরাপদ?

বিট কয়েনে লেনদেন কতটা নিরাপদ?

শুনলে হয়তো আফসোস করবেন অনেকই গতবছর এর দাম ছিল এক হাজার ডলার। তারও আগে ছিল একশো ডলার। এক বছরের মধ্যে একশো থেকে এক হাজার ডলারে দাম উঠে যায়। এর পর কয়েক মাসের মধ্যে এর দাম উঠে গেছে ১৯ হাজার ডলারে।

এখন এখানে অনেকেই এর পেছনে বিনিয়োগ করছে আরও বেশি টাকার জন্য। পরিশেষ এ বলতে চাই হুজুগে কান দেবেন না, আপনার টাকাই আপনার অবলম্বন তাই ভেবে চিন্তে বিনিয়োগ করুন। হোক সেটা শেয়ার মার্কেট হোক বা বিটকয়েন বা অন্য কোন মাধ্যম বাণিজ্যিক মার্কেট। 

প্রিয় পাঠক আমাদের লেখাভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন 

আমাদের আরো খবর পেতে হলে লাইক করুন আমাদের পেজঃ  www.facebook.com/bangladeshonlinenewspapers/

আমাদের নিউজ ওয়েবসাইট ঃ www.bangladeshonlinenews.com

আপনাদের ভাল লাগাই আমাদের সার্থকতা ধন্যবাদ ।

বিটকয়েন কি bitcoin price