শক্তিশালী ভূমিকম্প ইরান-ইরাক সীমান্ততে

৭.৩ এর ভূমিকম্পে ২,৫০০ জন আহত হয়েছে।
ইরাক ও ইরানের সীমান্তবর্তী এলাকায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা অন্তত ৩০০ জন।

ইরাকের সীমান্তবর্তী উত্তর ইরানেরএকটি এলাকায় ৭.৩ মাত্রার ভূমিকম্পের পর ৩০০ জনেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। হাজারহাজার মানুষ আহত হয়েছে, এইখবর নিশ্চিত করেন স্থানীয় ও রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম।৭.৩এর ভূমিকম্পে ২,৫০০ জন আহত হয়েছে।                                                                                             ইরাক ও ইরানের সীমান্তবর্তীএলাকায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা অন্তত৩০০ জন।

ইরানেরবেশ কয়েকটি প্রদেশে এই ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। ভূমিকম্প সবচেয়ে জোরালোভাবে আঘাতহেনেছে কেরমানশাহ প্রদেশে। ভূমিকম্পের পর তিন দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করাহয়েছে। সারপোল-ই-জাহাদ শহরেই হতাহত ব্যক্তির সংখ্যা ৯৭–এরও বেশি। কুর্দিস্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ভূমিকম্পে কমপক্ষেচারজন নিহত ও ৫০ জন আহত হয়েছে।

ইরানও ইরাকের বেশ কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।দুই দেশেই কয়েক হাজার মানুষ পরাঘাতের আশঙ্কায় রয়েছে। তারা ঘরবাড়ি ছেড়ে রাস্তায় ওপার্কে অবস্থান করছে।

কুর্দিস্বাস্থ্যমন্ত্রী রেকাওয়াত হামা রাশেদ রয়টার্সকে বলেন, পরিস্থিতি খুবইসংকটপূর্ণ।

ইরাক-ইরানসীমান্তের পর কোস্টারিকাতেও গতকাল রাতে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে।যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা বলছে, এর মাত্রা ছিল ৬ দশমিক৫। ভূমিকম্পের সময় হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে দুজন মারা যায়। সুনামির সতর্কতা দেওয়াহয়নি।

ভূমিকম্পেরপর বেশ কয়েকটি পরাঘাত অনুভূত হয়েছে। ইসরায়েলি গণমাধ্যম বলছে, সে দেশের বিভিন্ন জায়গায়ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।