বাচ্চাদের হাতে সেলফোন নয়। বিল গেটস।

তথ্য ও প্রযুক্তি।

কিছুদিন আগে মিরর এর সাথে বার্তালাপের সময় বিল গেইটস,যাকে প্রযুক্তির মোগল বলা হয় তিনি বলেন যে,তিনি তার বাচ্চাদের ১৪ বছরের আগে কোন ভাবেই নিজস্ব মোবাইল ফোন দেন না।তিনি বলেন সে,মোবাইল ফোন না দিলেও তিনি তার বাচ্চাদের পড়াশুনার প্রয়োজনে তা ব্যবহার করতে দেন কিন্তু তা শুধুমাত্র তার সামনে।

তার বাচ্চাদের বয়স বর্তমানে ২০,১৭,এবং ১৪ এবং তারা সকলেই নিজস্ব মোবাইল ফোন প্রাপ্তির সময়সীমা অতিক্রম করেছেন,তবুও তাদের কে অ্যাপলে এর যেকোন সামগ্রী ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি আছে।বিল গেইটস এর সাথে অ্যাপেল এর প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস এর শত্রুতা এর মূল কারন।

যেখানে অন্যান্য বাচ্চাদের বাবা মার মোবাইল ফোন না দেয়ার ব্যবহার অসহ্য লাগে,সেখানে গেইটস ভ্রাতৃ ত্রয় তা স্বান্দচ্ছে গ্রহন করে।

২০১৬ সালে প্রকাশিত "Kids & Tech" এর " ইভল্যুশন অফ টুডেইস ডিজিটাল ন্যাটিভস" শীর্ষক রিপোর্ট এরর তথ্য অনুসারে,আনুমানিকভাবে একটি বাচ্চা তার ১০.৩ বছর বয়সে প্রথম নিজস্ব স্মার্ট ফোন লাভ করে।

নিউ ইয়ক টাইমস এর প্রধান কার্য নির্বাহক এর ভাষ্যমতে,"আমি মনে করি নিজস্ব মোবাইল ফোন প্রাপ্তির বয়সসীমা আরো হ্রাস পাবে কারন বাবা মা বাচ্চাদের এই জিদ সামলাতে ক্লান্ত হয়ে পড়বে"।

জেমস.পি.স্টেয়ার,কমন সেন্স মিডিয়ার প্রধান কার্যনিবার্হক বলেন যে তিনি তার বাচ্চাদের নিজস্ব মোবাইল ফোন দেয়াতে খুবই কঠোর এবং যখন তারা মাধ্যমিক পাস করবে এবং নিজেদের পরিপক্কতা আমাদের উপলদ্ধি করাতে সক্ষম হবে তখনি তারা নিজস্ব মোবাইল ফোন পাবে।

তথ্য ও প্রযুক্তি