বাংলাদেশ জন্য সুখবর! খুব শিগগিরই জনশক্তি নিতে যাচ্ছে আরব আমিরাত

গত দুই বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) জনশক্তি রপ্তানির..

শেষ দুই বছর  সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) জনশক্তি রপ্তানির ধারা অনেকটা কম থাকলেও খুব শিগগিরই উপসাগরীয় দেশটি বাংলাদেশ থেকে আরো জনশক্তি নেওয়ার জন্য আগ্রহী। অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বার্তা সংস্থা বাসস’কে এই তথ্য জানিয়েছেন।

অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী জানান আরো জানান তারা (ইউএই) আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছেন যে, বাংলাদেশ থেকে আরো জনশক্তি নিয়োগের বিষয়টি আমাদের বিবেচনায় রয়েছে, খুব তারাতারি এই ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্ত হবে। আমার মনে হয়, ইউএই ভবিষ্যতে বাংলাদেশ থেকে আরো শ্রমিক রিক্রুট করলে তা উভয় দেশের জন্য লাভজনক হবে বলে মনে করছি।

গত ৫-৬ ফেব্রুয়ারি আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত দু’দিনব্যাপী ৪র্থ বাংলাদেশ-ইউএই যৌথ কমিশন সভায় বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন এম এ মান্নান। অপরদিকে ইউএই’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন সেদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ড. আনোয়ার গার্গেশ। দীর্ঘ আট বছর পর দু’দিনব্যাপী এই যৌথ কমিশন সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এম এ মান্নান আরো বলেন: ইউএই-তে জনশক্তি রফতানি ব্যাপকভাবে হ্রাসের প্রেক্ষাপটে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউএই কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশি শ্রমিকদের ভিসা দেয়ার বিষয়ে আরো উদার নীতি গ্রহণের চিন্তা-ভাবনা করছেন।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) একজন কর্মকর্তা  জানান: বৈঠকে বাংলাদেশ ভ্রমণ ভিসা ও কাজের ভিসাসহ বিভিন্ন ইউএই ভিসা পেতে এদেশের যেসব সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় তা তুলে ধরা হয়েছে। ইউএই’র পক্ষ থেকেও বাংলাদেশকে জানানো হয়, তাদের দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে তারা কাজ করবে।

বাংলাদেশ থেকে জনশক্তি নেবে আরব আমিরাত বাংলাদেশ থেকে জনশক্তি নেবে সৌদি আরব