পারিবারিক জীবনে অশান্তি না চাইলে এড়িয়ে যান ৫টি ব্যাপার

কখনো সামান্য ঘটনা থেকেও তৈরি হতে পারে ভুল বোঝাবুঝি। তাই দেখে নিন কী করে অশান্তি এড়িয়ে দু’জনে এক সঙ্গে পথ হাঁটতে পারেন।

বিবাহ মানেই বন্ধন, আর এক সাথে থাকবেন বলেই এক হওয়া। সুখ দুঃখ হাসি কান্না ভাগ করে নেওয়ার জন্যই তো এক ছাদের তলায় থাকার সিদ্ধান্ত নেওয়াকেই আমারা সামাজিক ভাবে বিয়ে বলি। আর ঘরে শান্তি না থাকলে ভাই কোথাও যেয়ে শান্তি পাবেন না, এটা লিখিত। কিন্তু সমস্যা হয় তখনই যখন একে উপরের উপর বেশী অধিকার খাতাটে যান,  ও অপরের বড্ড বেশি কাছাকাছি যাওয়ার চেষ্টা করেন। তাতে নষ্ট হয় ব্যক্তিগত পরিসরটুকু।

সব সময় অতি মাত্রিক দামি উপহার দেওয়া থেকে বিরত থাকুন

সব সময় অতি মাত্রিক দামি উপহার দেওয়া থেকে বিরত থাকুন

আপনি পুরুষ হন বা স্ত্রী  খুব বেশী দামি উপহার দেবেন না। অনেক সময়েই স্বামী এবং স্ত্রীর আয় সমান নাও হতে পারে। আপনি সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে বারবার দামী উপহার দিলে তিনিও যে সম মূল্যেরদামী উপহার দিতে পারবেন, তার কোনো মানে নেই। এক্ষেত্রে অনেক সময়েই ভুল বোঝাবুঝি তৈরি হয়। তাই বেপারটা আপনাকে বুজতে হবে।

নিজের সঙ্গিনী কে বোঝার চেষ্টা করুন সব সময়

নিজের সঙ্গিনী কে বোঝার চেষ্টা করুন সব সময়

কোনো সমস্যায় পড়লে আপনিই যে তার একমাত্র অবলম্বন সেটা কখনোই ভাবা ঠিক হবে না আপনার। তাহলে তাঁর স্বাবলম্বী মনোভাব নষ্ট হতে পারে।

সময়কে সব সময় মূল্য দিন

সময়কে সব সময় মূল্য দিন

কোথাও এক সঙ্গে বের হবেন কিন্তুআপনি বারবার দেরি করছেন। এতে তিক্ততা বারবে আপনার সঙ্গিনীর।

সময়কে সব সময় মূল্য দিন

সময়কে সব সময় মূল্য দিন

আপনার আত্মমর্যাদা দিকে খেয়াল রাখুন

আপনার আত্মমর্যাদা দিকে খেয়াল রাখুন

একান্ত প্রয়োজন না হলে আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীরজন্য নিজের পেশা-জীবনের কোনো ক্ষতি করবেন না। এতে আপনার আত্মমর্যাদা ক্ষুণ্ন হতে পারে।

কোন কিছুই তাড়াহুড়া কবেন না

কোন কিছুই তাড়াহুড়া কবেন না

‌স্বভাব হোক বা সাজগোজ-জোর করে কিছু পাল্টে ফেলারচেষ্টা করবেন না। মনে রাখবেন, আরোপিত কোনও কিছুই দীর্ঘস্থায়ী নয়। ‌‌‌

আশা করি পোস্টটি আপনাদের ভাল লেগেছে, আপনাদের ভাল লাগাই আমাদের স্বার্থকতা। পোস্টটি ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ। 

happy couple family