চুল পড়া নিয়ে ভাবান আর না আর না।

স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য।

প্রতিদিনই একটু একটু করে আপনার চুল পড়ে যাচ্ছে। আর তা দেখে আপনার মন হয়ে যাচ্ছে খারাপ। আর মাথায় চুল যখন গড়াগড়ি খায় ঘরের মেঝেতে তখন ত মেজাজ ফোরটি নাইন।কিভাছেন এই সমস্যা শুধু আপনার? সমস্যাটি আপনার মতো আরো অনেকেরই। যদিও দিনে একশোটি পর্যন্ত চুল ওঠাকে স্বাভাবিক বলেই ধরা হয়, তবু প্রতিদিন গোছা গোছা চুল উঠে যাওয়াটাও সমস্যা। তাই কিছু খাবার তালিকা বদলে ফেলুন যা খেলে চুল পড়া বন্ধ হয়।

 চলুন তবে জেনে নেই কাজগুলো কি কি।

সুস্থ চুল পেতে চাইলে ও চুল পড়া বন্ধ করতে চাইলে খেতে পারেন বাদাম। আখরোট আর আমন্ড মানেই পুষ্টি আর সুস্বাস্থ্যের নিশ্চয়তা দেবে আপনাকে। বায়োটিন, বি ভিটামিন, ওমেগা থ্রি আর সিক্স ফ্যাটি অ্যাসিড প্রচুর পরিমাণে রয়েছে বাদামে। চুলের কিউটিকল মজবুত করতে আর স্ক্যাল্পে পুষ্টি জোগাতে রোজ একমুঠো করে বাদাম খান।

অনেকই আছেন ডিম দেখলে নাক সিঁটকান আর দুধের গন্ধও সহ্য করতে পারেন না অনেকে? চুল তো আপনারই পড়বে! চুলের গোড়ায় নিয়মিত প্রোটিনের জোগান দিতে এই খাবারগুলো খেতেই হবে। চুল পড়া বন্ধ করে চুলের ঘনত্ব বাড়াতে প্রতিদিন খান ডিম, দুধ আর দই। ডেইরিজাত খাদ্যে প্রচুর পরিমানে বায়োটিনও আছে যা চুল পড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে।

চুল পড়া বন্ধ করতেই আজ থেকেই খেতে শুরু করুন পালংশাক। ক্ষতিগ্রস্ত চুল সুস্থ করে তুলতে পারে অ্যান্টি-অক্সিডান্ট, যা পালংশাকে রয়েছে পুরো মাত্রায়। পালংয়ের ভিটামিন বি আর ভিটামিন সি চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। অল্প কদিনেই চুল পড়া বন্ধ হবে।

চুল পড়া বন্ধ করতে আরেকটি অব্যর্থ খাবার স্ট্রবেরি। অ্যালোপেশিয়া প্রতিরোধ করে চুলের গোড়া মজবুত করতে পারে স্ট্রবেরি। স্ট্রবেরির ফলিক অ্যাসিড আর ভিটামিন বি-এর পুষ্টি চুলের সামগ্রিক স্বাস্থ্যের পক্ষেও খুবই জরুরি।