ক্যালেন্ডার এর উৎপত্তি।

জানা অজানা।

বলেন ত আজ কত তারিখ?

বলেন ত আজ কত তারিখ?

কোন মাস চলে এখন বছরের?জানি,এর উত্তর আপনি জানেন।কিভাবে জানেন?কারন আপনার কাছে ক্যালেন্ডার আছে।ক্যালেন্ডার না থাকলে এসব জানা প্রায় দুস্কর ছিল আপনার পক্ষে।তাই নয় কি!আচ্ছা ক্যালেন্ডার কিভাবে তৈরী হইল ভাবছেন কখনো?? কে বা কারা ক্যালেন্ডার এর উৎপত্তি করল?

আচ্ছা আর ভাবতে হবেনা প্রিয় পাঠক, আমিই বলছি ক্যালেন্ডার এর জন্মকথা।

চাষাবাদ করার প্রয়োজনেই প্রথম নির্দিষ্ট সময়ের প্রয়োজনীয়তা অনুভব হয়।সেই থেকেই ক্যালেন্ডার এর সৃষ্টি।

রোমান রাই সর্বপ্রথম ক্যালেন্ডার সূত্রপাত ঘটায়।

রোমান রাই সর্বপ্রথম ক্যালেন্ডার সূত্রপাত ঘটায়।

পন্ডিত পন্ডিফোরাই সর্বপ্রথম এটি আবিষ্কার করেন।তার প্রস্তাবিত ক্যালেন্ডারে মাসের সংখ্যা ছিল দশটি।কারন ইউরোপে দুই মাস বরফের জন্য চাষাবাদ করা যেত না।তাই বছর শুরু হত মার্চ মাস দিয়ে।কিন্তু পরর্বতীতে বছরে জানুয়ারি আর ফেব্রুয়ারি মাস যোগ করা হয়।রোমান রাজা নুমা পন্টিলাস ৭১৩ অব্দে বছরে এই দুটি মাস যোগ করেন।প্রথমে মাসের হিসাব করা হত চাঁদের মাধ্যমে।চাঁদের শুক্লপক্ষ থেকে মাস গননা হত,যাকে বলা হতো ক্যালেন্দি বলা হত।এই ক্যালেন্দি শব্দ থেমেই ক্যালেন্ডার শব্দের উৎপত্তি।

বছরের শুরুতে দুইটি মাস যোগ করা হলেও বছরের শুরু করা হত মার্চ মাস থেকে।পরর্বতীতে ১০ সদস্যের এক মেজিস্ট্রেট বোর্ড এটি ঘোষনা করেন যে জানুয়ারি থেকেই বছরের হিসাব করতে হবে।তারপর ৪৫১ অব্দ থেকে এই প্রচলন শুরু হয়।

লিপইয়ার এর প্রচলন শুরু হয় রোমান সম্রাট জুলিয়াস সিজারের সময়কাল থেকে।তিনি গ্রিস থেমে জৌত্যিবিদ মোসাজিনিসকে নিয়ে আসেন ক্যালেন্ডার সংস্কারের জন্য।তিনি সূর্যের গতি পথের উপর পরীক্ষা করে দেখেন যে পৃথিবীর সূর্যের চারদিকে ঘুরতে সময় লাগে ৩৬৫ দিন ৬ ঘন্টা।এই হিসাবে প্রতি চার বছর পর পর একটি বছরে ৩৬৬ দিন হয়,যাকে আমরা লিপইয়ার বলে থাকি।তখন ফেব্রুয়ারি মাসে ২৮ দিনের জায়গায় ২৯ দিন হয়।এরপর থেকে একে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার বলা হয়।

ধীরে ধীরে সারা বিশ্ব এই গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার এর নিয়ম অনুসারেই চলতে শুরু করল,যদিও বিশ্বে আরো ৪০ টির মত ক্যালেন্ডার আছে,তাও এটি সারাবিশ্বে প্রচলিত।