আর্মির নিত্যনতুন প্রযুক্তি।

প্রযুক্তি।

বর্তমান আর্মি এখন অনেক উন্নত তা নিশ্চিত ভাবে বলা যায়।আর্মিতে প্রতিদিন ই নিত্যনতুন প্রযুক্তি যুক্ত হয় যাতে দেশকে যেকোন শত্রুর হাত থেকে রক্ষা করা যায়।আর্মিতে যুক্ত হয়া বা যুক্ত হতে যাচ্ছে এমন কিছু প্রযুক্তি নিয়েই আজকের এই লেখা।

মানব মস্তিষ্ক যখন সুরক্ষাকারী।

মানব মস্তিষ্ক যখন সুরক্ষাকারী।

আমাদের মস্তিষ্ক আমাদের দেহকে সুরক্ষা করে,তেমনি ভাবে আর্মি মানুষ এর ব্রেনকে কাজে লাগিয়ে সহজে সুরক্ষা প্রাচীর বা যেকোন কাজ করতে চাচ্ছে।কল্পনা করুন, "এক প্লাটুন আর্মি কে আপনি আপনার মস্তিষ্ক দিয়ে নিয়ন্ত্রন করছেন"।কোন যন্ত্র ছাড়াই আপনি তাদের কাজ করার নির্দেশ দিতে পারছেন মুহূর্তের মধ্যে।

কিন্তু মানুষ এর ব্রেন নিয়ে কাজ করার অনুমতি এখনো গ্রহণযোগ্য নয়।তাই অতি দ্রুত এটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হচ্ছেনা।

 

রোবট এর যুদ্ধক্ষেত্র।

রোবট এর যুদ্ধক্ষেত্র।

 যেকোন যুদ্ধ ক্ষেত্রে মানুষ এর রক্তক্ষয় হোক আমরা তা চাইনা,কিন্তু মানুষ ব্যতীত শত্রু মোকাবিলার উপায় কি! আর্মি প্রযুক্তি এই সমস্যা দূর করার জন্য নতুন প্রযুক্তি।ধরুন যুদ্ধক্ষেত্র এ মানুষ বদলে রোবট যুদ্ধ করছে, তাতে করে আপনার রক্তক্ষয় ও দূর হলো,প্রযুক্তিও যোগ হল। 

তাছাড়া রোবট দ্বারা বিভিন্ন কাজ পরিচালনাও করা হয়,যা আমাদের সময় বাঁচায়।।

রেইলগান এখন আর স্বপ্ন নয়।

 রেইলগান এখন আর স্বপ্ন নয়।

নরমাল বন্দুক বা রাইফেল ছাড়াও নিত্যনতুন অনেক বন্দুক নিয়ে এসেছে আর্মি প্রযুক্তি,যার অন্যতম হল রেইলগান। রেইলগান অত্যাধুনিক বন্দুক এর মধ্যে অন্যতম,যার সাহায্যে রোবটরা খুব সহজেই কাজ করতে পারে।

অত্যাধুনিক বুলেট।

অত্যাধুনিক বুলেট।

ইংলিশ মুভিতে গুলাতে আমরা প্রায়ই অত্যাধুনিক বন্দুক এবং বুলেট দেখতে পাই।আর ভাবি বাস্তবে যদি এমনটা হত আহহহ।বাস্তবেও এখন হচ্ছে।

এখন বুলেট সমুহ থেকে গান পাউডার এর পরির্বতে ইলেট্রো মেগনেটিক পাওয়ার নির্গত হয় যা শত্রুকে চিহ্নিত করতে সাহায্য করে।

 

মহাকাশ যুদ্ধ।

মহাকাশ যুদ্ধ।

আমরা সিনেমা গুলাতেই দেখি এক গ্রহের প্রানীর সাথে আরেক গ্রহের প্রানীর যুদ্ধ হচ্ছে,এর জন্য আলাদা ফোর্স গঠন করা আছে।এখন সিনেমা না শুধু বাস্তবেও আমরা সেই ঘটনাই দেখব তা হয়তো খুব বেশি দূরে নয়।

ওয়াইট হাউজ ঘোষনা দিয়েছে স্পেস ফোর্স নামক একটি ফোর্স গঠন করার জন্য,যা স্পেস এর যেকোন কাজে কাজ করবে।চায়না আর রাশিয়া এখনি স্পেস নিয়ে কাজ করছে।

এখন শুধু ফোর্স উন্নত করা, নতুন বন্দুক আনার মধ্যেই সব সীমাবদ্ধ না,বিভিন্ন নতুন যন্ত্রপাতির মাধ্যমেও প্রযুক্তি এর উন্নতি করা হচ্ছে।

আবহাওয়া সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য বিভিন্ন পোষাক যেমন আইরন স্যুট বানানো হয়েছে।তাছাড়া যুদ্ধের জন্য বিভিন্ন ঘন্টা বা অন্যান্য যন্ত্রপাতির উন্নতি করা হয়েছে।