আজ হুমায়ুন ফরীদির ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী

কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ আক্ষেপ করে প্রয়াত নন্দিত অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদি সম্পর্কে বলেছিলেন, ‘আচ্ছা, এই মানুষটি কী অভিনয়কলায় একটি একুশে পদক পেতে পারেন না! এই সম্মান কী তার প্রাপ্য না?

দেখতে দেখতে ছয়টি বছর পেরিয়ে গেল। আজ থেকে ঠিক ছয় বছর আগে মাত্র ৬০ বছর বয়সে মারা যান গুণী এই অভিনেতা। ফাল্গুনের এই প্রথম দিনটিতে হুমায়ুন ফরীদি সবাইকে কাঁদিয়ে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন দেশের অগণিত মানুষের প্রিয় অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদি।

এবার অভিনয় অঙ্গনে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ তাকে এই স্বীকৃতি দিলো সরকার। 

 হুমায়ুন কামরুল ইসলাম তার প্রকৃত নাম । সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব টি এম মুছা তালুকদার স্বাক্ষরিত ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে হুমায়ুন ফরীদির চেনা নামের সঙ্গে আসল নামও উল্লেখ করা হয়েছে। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে পদক প্রাপ্তদের সম্মানজনক একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশি চলচ্চিত্র অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদি ১৯৫২ সালের ২৯শে মে ঢাকার নারিন্দায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একই সাথে মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্যখ্যাতি অর্জন করেন।

ছবি-২০১২ঃ ফাল্গুনের এই প্রথম দিন, বিদায় তোমাকে অভিনয়ের ধ্রুবতারা

ছবি-২০১২ঃ ফাল্গুনের এই প্রথম দিন, বিদায় তোমাকে অভিনয়ের ধ্রুবতারা

ফাল্গুনের এই প্রথম দিনটিতে হুমায়ুন ফরীদি সবাইকে কাঁদিয়ে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন দেশের অগণিত মানুষের প্রিয় অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদি।

টিভি নাটক এ ও ছিলেন দুর্দান্ত শক্তিমান অভিনেতা

টিভি নাটক এ ও ছিলেন দুর্দান্ত শক্তিমান অভিনেতা

তিনি ২০০৪ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। নাট্যাঙ্গনে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠানের ৪০বছর পূর্তি উপলক্ষে তাঁকে সম্মাননা প্রদান করে। 

২০১২ সালের ১৩ফেব্রুয়ারি ঢাকায় তিনি মৃত্যুবরন করেন।

২০১২ সালের ১৩ফেব্রুয়ারি ঢাকায় তিনি মৃত্যুবরন করেন।

এছাড়া বিখ্যাত টিভি নাটকের মধ্যে রয়েছে- নিখোঁজ সংবাদ, হঠাৎ একদিন, পাথর সময়, সংশপ্তক, কোথাও কেউ নেই।এছাড়া বীর পুরুষ, দুর্জয়, শাসন, মায়ের অধিকার, জয়যাত্রা, ভণ্ড, ব্যাচেলর নামের চলচ্চিত্রতেও তিনি অভিনয় করেছেন। 

আজ হুমায়ুন ফরীদির ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী আজ হুমায়ুন ফরীদির মৃত্যুবার্ষিকী