১৫টি টিপস যারা ভ্রমণ পছন্দ করেন এবং পরিবেশ দূষণ অপছন্দ করেন।

জানা অজানা।

কাগজের টিকেট থেকে শুরু করে প্লাস্টিকের সুভেনির এর মাধ্যমে অথবা বায়ু দূষণ অথবা পরিবেশ দূষণ যাই আপনি অপছন্দ করেন না কেন এই ২০১৯ সালে আপনাকে ১৫টি টিপস দিব যা আপনাকে একই সাথে ভ্রমণে এবং ঘরে ও বাইরে দূষণমুক্ত পরিবেশ বজায় রাখতে সাহায্য করবে।

 আপনি যদি বিমানে ভ্রমণ করতে চান তাহলে আপনার টিকেটটি অনলাইনে বুকিং দিন এতে কাগজের অপচয় বন্ধ হবে। এছাড়া টিকেটের অপশনে পেপার টিকেট এর বদলে মোবাইল টিকেটের অপশনটি বেছে নিন।

দুই

দুই

ভ্রমণের সময় থাকার জন্য এমন সব কটেজ অথবা লজ ভাড়া করুন যেগুলো প্রকৃতি এবং পরিবেশের জন্য ভারসাম্যপূর্ণ এবং দূষণমুক্ত

তিন

তিন

বাসা বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় আপনার সকল ইলেকট্রনিক্স জিনিস যেগুলো ভ্রমণের সময় প্রয়োজনীয় নয় যেমন টিভি মাইক্রোওয়েভ ওভেন এসি প্রয়োজন হলে ফ্রিজ বন্ধ করে রেখে যান এতে বিদ্যুতের খরচ কম হবে এবং পরিবেশে কার্বন ছড়ানো বন্ধ হবে।

চার

চার

৫. পচনশীল খাদ্যদ্রব্য নিজে খেয়ে ফেলুন অথবা অন্য কাউকে দিয়ে দিন অথবা ফেলে দিন।

৬. ছুটিতে যাওয়ার জন্য আলাদা কোনো কাপড় রাখার মোবাইল ওয়ারড্রব কিনার দরকার নেই অল্প কাপড় নিন। ছোট একটি ব্যাগ ব্যবহার করুন।

৭. একটি গ্লাস একটি জগ ও একটি খাবারের পাত্র সম্ভব হলে নিবেন এতে করে ডিসপসাবল গ্লাস প্লেট এর ব্যবহার কমবে এবং পরিবেশ দূষণ রোধ হবে।

চার

চার

৫. পচনশীল খাদ্যদ্রব্য নিজে খেয়েফেলুন অথবা অন্য কাউকে দিয়ে দিন অথবা ফেলে দিন।

৬. ছুটিতে যাওয়ার জন্য আলাদা কোনোকাপড় রাখার মোবাইল ওয়ারড্রব কিনার দরকার নেই অল্প কাপড় নিন। ছোট একটি ব্যাগ ব্যবহার করুন।

পাঁচ

পাঁচ

৮. আপনি যদি ভ্রমণ পিপাসু হন তাহলে প্রতিবার ভ্রমণের সময় আপনার ব্যাকপ্যাক আপনি রেডি করুন কারন আপনার পরিবারের অন্য কেউ আপনার মত পরিবেশ সচেতন নাও হতে পারে

৯. চেষ্টা করুন যন্ত্রচালিত কোন যানবাহন না নিয়ে আপনি আপনার নিজের সাইকেল অথবা অন্য কোন অযান্ত্রিক বাহন দিয়ে এয়ারপোর্ট পৌঁছাতে।

১০. চেষ্টা করুন পাট ভাব চটের ব্যাগ ব্যবহার করতে প্লাস্টিক বা রাবার জাতীয় ব্যাগ ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন

১১. বড় বড় ডিপার্টমেন্টাল স্টোর থেকে কেনাকাটা করার চেয়ে লোকাল মার্কেট থেকে ও সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে কেনাকাটা করার চেষ্টা কর।

ছয়

ছয়

১২. সাবান-শ্যাম্পু বহন না করে ছোট মিনি প্যাক বা ছোট সাইজের নতুন কিনে ব্যবহার করুন। 

১৩. আপনি যদি কম সময়ের জন্য ভ্রমণ করে থাকেন তাহলে লন্ড্রি করা থেকে বিরত থাকুন এতে করে লন্ড্রি মেশিন এর কার্বন নিঃসরণ কম হবে।

১৪. যতটুকু সম্ভব বৈদ্যুতিক যন্ত্রের ব্যবহার কম করুন।

১৫. সর্বশেষ আপনি যদি পরিবেশবাদী হন তাহলে পরিবেশ দূষণ রোধ করতে কিছু দান করুন।

daily tips